" /> ‘মুসলিম রোগী’ হিসেবে ভুল চিকিৎসায় পঙ্গু করে দেয়া হয়েছে তসলিমাকে! – নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন
রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩, ০৫:২০ অপরাহ্ন

‘মুসলিম রোগী’ হিসেবে ভুল চিকিৎসায় পঙ্গু করে দেয়া হয়েছে তসলিমাকে!

721748 152

ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন জানিয়েছেন, সেখানে ভুল চিকিৎসায় তাকে সারা জীবনের জন্য পঙ্গু করে দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) রাতে নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

সেইসাথে তিনি অভিযোগ করেছেন, তার সাথে সে রকম আচরণই করা হয়েছে, যা অন্যান্য ‘বাংলাদেশী মুসলিম’ রোগীদের সাথে করা হয়।

কয়েকদিন ধরেই তার চিকিৎসা বিষয়ে ফেসবুকে নানা পোস্ট দিয়ে যাচ্ছিলেন তসলিমা। এসব পোস্টে চিকিৎসকদের গাফিলতির চরম নিন্দা করেছেন লেখিকা।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ১৯ মিনিটে দেয়া স্ট্যাটাটে তসলিমা লিখেছেন :

‘ধিক্কার দিচ্ছি নিজেকে। ধিক্কার দিচ্ছি এতকালের আমার মেডিক্যাল জ্ঞানকে। আমাকে হাসপাতালে মিথ্যে কথা বলা হয়েছিল যে আমার হিপ বোন ভেঙ্গেছে। আমার জীবনে কোনও জয়েন্ট পেইন ছিল না, জয়েন্ট ডিজিজ ছিল না। আমাকে মিথ্যে কথা বলে, ফিমার ফ্র্যাকচারের ট্রিটমেন্টের নামে আমার হিপ জয়েন্ট কেটে, ফিমার কেটে ফেলে দিয়ে আমাকে সারাজীবনের জন্য পঙ্গু বানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ধিক্কার দিচ্ছি আমি কেন ক্রিমিনাল টিমের ট্র্যাপে পড়লাম। আজ আমি এক্সরে রিপোর্ট দেখলাম আমার। আমার কোথাও কোনও ফ্র্যাকচার হয়নি সেদিন। ফ্র্যাকচার হয়নি বলে আমার হিপ জয়েন্টে কোনও ব্যথা ছিল না, কোনও সুয়েলিং ছিল না।

আমাকে বাংলাদেশি মুসলিম রোগী হিসেবে দেখা হয়েছে। যার কাছ থেকে প্রচুর টাকা নিয়ে অপারেশান করা হবে। সেই নিরীহ রোগী দেশে ফিরে যাবে, এবং ভেবে সুখ পাবে যে তার ট্রিটমেন্ট হয়েছে।’

তবে সেই চিকিৎসক কিংবা হাসপাতালের নাম তার কোনো পোস্টেই উল্লেখ করেননি তসলিমা। তিনি তাদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেবেন, সেদিকেই তাকিয়ে তার অনুরাগীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা