" /> শীতার্তদের পাশে দাঁড়াতে জামায়াত নেতার আহ্বান – নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন
শনিবার, ০১ এপ্রিল ২০২৩, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন

শীতার্তদের পাশে দাঁড়াতে জামায়াত নেতার আহ্বান

719134 143

চলমান তীব্র শীতে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় শীতার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি ও বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মো: দেলাওয়ার হোসেন।

তিনি বলেছেন, দেশজুড়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলছে। উত্তরাঞ্চলে হিমালয়ের নিকবর্তী হওয়ায় বিশেষ করে ঠাকুরগাঁওসহ আশেপাশের জেলাগুলোতে শীতের প্রকোপ খুব বেশি। এতে করে সমাজের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ স্বাভাবিকভাবে নিজেদের কাজকর্ম করতে পারছেন না।

এমতাবস্থায় তারা অত্যন্ত কষ্ট করে দিনাতিপাত করছে। তীব্র ঠান্ডায় বিপর্যস্ত জনজীবন। রোববার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছে ৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, এ তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদফতর। এটাই চলতি শীত মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। সাথে উত্তরের বাতাস থাকায় দেখা দিয়েছে কনকনে ঠান্ডা বা শীত। তীব্র শীতের কারণে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। সাথে দেখা দিচ্ছে ঠান্ডাজনিত নানা রোগ। এই দুর্যোগ মুহূর্তে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় মানুষের পাশে এগিয়ে আসতে হবে। আসুন আমরা সকলে মিলে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াই।

সোমবার ঠাকুরগাঁও জেলায় আয়োজিত শ্রমজীবী মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ, অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ, ছাত্রদের মাঝে শীতবস্ত্র উপহার প্রদানের পৃথক ৩টি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো: দেলাওয়ার হোসেন এসব কথা বলেন। এসব প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ঠাকুরগাঁও জেলা আমির অধ্যক্ষ কফিল উদ্দিন আহম্মেদ, ঠাকুরগাঁও জেলা শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা মতিউর রহমান, ছাত্রশিবিরের ঠাকুরগাঁও শহর সভাপতি এস এম আদিউল ইসলামসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

দেলাওয়ার হোসেন বলেন, জনগণের কল্যাণে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী দেশজুড়ে সার্বিক সেবা-সহযোগিতা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। যদিও বর্তমানে দেশে সমাজের প্রতিটি রন্ধ্রে রন্ধ্রে জুলুম নির্যাতন, হিংসা বিদ্বেষ, স্বৈরাচারী সরকারের কালো থাবা চেপে বসেছে। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য প্রয়োজন সমাজ-দেশ-রাষ্ট্রে সৎ নেতৃত্ব। সমাজে চেপে বসা জুলুম নির্যাতনের বিপরীতে সুখশান্তি প্রতিষ্ঠা, সুন্দর ও আধুনিকায়ন ঠাকুরগাও শহর গড়তে সৎ নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। যেকোনো দুর্যোগ-দুর্ভোগে জামায়াত সবার আগে মানুষের পাশে ছুটে যায়। বিগত বছরেও আমিরে জামায়াত ডা. শফিকুর রহমান বন্যাসহ নানা দুর্যোগে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে সহায়তা তুলে দিয়ে এসেছেন। সেই সাথে জামায়াত নেতৃবৃন্দ ঠাকুরগাঁও-কুড়িগ্রামসহ ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন জেলায় মানুষের জন্য সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে ছুটে গেছেন।

এসব জাতীয় নেতৃবৃন্দকে আজ সম্পূর্ণ মিথ্যা-কাল্পনিক অভিযোগে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। দেশের এই দুর্দিনে আমরা তাদের মুক্তি দাবি করছি। জামায়াত নেতৃবৃন্দকে জনগণের সেবায় পাশে থাকার সুযোগ দিন।

তিনি আরো বলেন, ঠাকুরগাঁও-১ (সদর) আসন এলাকার জনগণের জীবনমান উন্নয়নে চোখে পড়ার মতো তেমন কোনো কাজ নেই। জাতীয় সংসদের গুরুত্বপূর্ণ নেতা হিসেবে ঠাকুরগাঁও-১ (সদর) থেকে নির্বাচিত হয়ে এলাকার কল্যাণে সেসব নেতাদের ভূমিকা দেখা যায় না। আমরা ঠাকুরগাঁও-১ (সদর) এলাকার জনগণের কল্যাণে ও জীবনমান উন্নয়নে যথাযথভাবে পরিকল্পনা হাতে নিয়ে মানুষের সেবায় কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

আগামী নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ (সদর) সংসদীয় আসনে ভোট প্রদানের মাধ্যমে এলাকার জনগণ তাদের সঠিক নেতৃত্ব খুঁজে নেবে। ঠাকুরগাঁওয়ে আমরা জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে জনগণের কল্যাণে নানামুখী কাজ করে যাচ্ছি।

এ সময় তিনি শীতার্ত মানুষের সেবা-সহযোগিতায় সমাজের বিত্তবান ও নানা শ্রেণি-পেশার জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা