" /> ইংল্যান্ডের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংএ হোয়াইটওয়াশের পথে পাকিস্তান – নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

ইংল্যান্ডের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংএ হোয়াইটওয়াশের পথে পাকিস্তান

eng vs pak e1671461992238

5 / 100

টেস্ট ক্রিকেটে সীমিত ওভারের ব্যাটিং করা ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের ফ্যাশন হয়ে দাড়িয়েছে । করাচিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্ট তিনদিনে ‘টি-টোয়েন্টি স্টাইলে ব্যাটিং করে প্রায় শেষ করেই ফেলেছিল ইংল্যান্ড। তবে শেষ পর্যন্ত আর তা সম্ভব হয়নি। পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করতে দরকার ৫৫ রান। ২ উইকেটে ১১২ রানে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করে ইংল্যান্ড। 

বিনা উইকেটে ২১ রানে আজ তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান। উদ্বোধনী জুটিতে আব্দুল্লাহ শফিক-শান মাসুদ যোগ করেছেন ৫৩ রান। ১৬তম ওভারের দ্বিতীয় বলে জ্যাক লিচকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হন মাসুদ। পাকিস্তানের এই বাঁহাতি ওপেনার করেন ২৪ রান। ওই ওভারের শেষ বলে আজহার আলিকে বোল্ড করেন লিচ। সাদা পোশাকে শেষ ইনিংসে শূন্য রান করে আউট হন পাকিস্তানের এই ব্যাটার। ২৬ রান করা আব্দুল্লাহ শফিককেও দ্রুত ড্রেসিংরুমে ফেরান লিচ।১ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে পড়ে পাকিস্তান। এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে দলের হাল ধরেন বাবর আজম ও সৌদ শাকিল। চতুর্থ উইকেট জুটিতে বাবর-শাকিল যোগ করেন ১১০ রান। এই দুই পাকিস্তানি ব্যাটার ফিফটি করেছেন। ৫৪ রান করা বাবরকে ফিরিয়ে ১১০ রানের জুটি ভাঙেন রেহান আহমেদ।  মূলত রেহানই পাকিস্তানের ইনিংসের ভাঙন ধরানো শুরু করেন। মোহাম্মদ রিজওয়ান, শাকিল-এই দুই ব্যাটারকে দ্রুত ড্রেসিংরুমে ফিরিয়েছেন ইংলিশ এই লেগস্পিনার। যেখানে শাকিল করেন ৫৩ রান। ১৭৭ রানে ৬ উইকেট পড়া পাকিস্তান অলআউট হয় ২১৬ রানে।  

১৬৭ রানের লক্ষ্যে ইংল্যান্ড ব্যাটিং করতে নামে দুই ইংলিশ ওপেনার বেন ডাকেট ও জ্যাক ক্রলি।শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে থাকেন। উদ্বোধনী জুটিতে ৬৯ বলে ৮৭ রান যোগ করেন এই দুই ইংলিশ ওপেনার। ৪১ রান করা ক্রলিকে ফিরিয়ে উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন আবরার আহমেদ। তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে আসেন রেহান। ৮ বলে ১০ রান করে তিনি হাঁটা দেন ড্রেসিংরুমের দিকে। রেহানের উইকেটও নেন আবরার।২ উইকেটে ১১২ রানে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করে ইংল্যান্ড। ৩৮ বলে ৫০ রান করে অপরাজিত আছেন ডাকেট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা