মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:৫২ অপরাহ্ন
নিউজ বোর্ড :
শেয়ারট্রিপ পেল স্টার্টআপ থেকে ৫ কোটি ডলার বিনিয়োগ নারীদের বঙ্গমাতার জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী তেলের মূল্য বিশ্ব বাজারে কমলে দেশেও সমন্বয় করা হবে : তথ্যমন্ত্রী বাড়ানো হতে পারে ট্রেনের ভাড়াও : রেলমন্ত্রী ১ অক্টোবর থেকে,পণ্য বিক্রি বন্ধ হচ্ছে ডিজিটাল প্লাটফর্ম ফেইসবুক লাইভে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে লঞ্চ মালিকদের সাথে বৈঠক,লঞ্চের ভাড়া বাড়ানোর আবেদন ঢাকার দুই মেয়র মন্ত্রী পদমর্যাদা পাচ্ছেন ‘আপডেট অফ ভাসকুলার সার্জারি’বিএসএমএমইউয়ে বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত ৫ নারী পেলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পদক তরুণ প্রজন্মের প্রতি,বঙ্গমাতার আদর্শ ধারণের আহ্বান রাষ্ট্রপতির দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন,ফজিলাতুন নেছা মুজিব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি কর্মসূচি জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বিএনপি নতুন ,রাজপথের পুরাতন খেলোয়াড় আমরা-ওবায়দুল কাদের সরকার দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র বানিয়েছে : মির্জা ফখরুল শ্রীলঙ্কায় ডিজেল-গ্যাসের পর নিত্যপণ্যের দাম কমালো ‘চীনের স্বপ্ন’ ছিল পেলোসি : ট্রাম্প জগদীপ ধনকড় ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি হলেন ৩টি টি-টোয়েন্টির ২টি জিতেছে জিম্বাবুয়ে, ১টি বাংলাদেশ। শতকোটি টাকার ‘‌দিন দ্য ডে’ কথা নাকি নির্মাণ নাকি অনন্ত-বর্ষা নিয়ে চলমান তান্ডব !
নোটিশ বোর্ড :
জরুরি ঘোষণাঃ আমাদের আই টি বিভাগের কারিগরি উন্নয়ন এর কাজ চলছে! এতে প্রচারে বিঘ্ন ঘটতে পারে সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখিত। #Ndtvbdnewsroom “জরুরী আবশ্যক”বেসরকারী অনলাইন টেলিভিশন চ্যানেল ” নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন ” এনডিটিভি তে এ উপস্থাপক উপস্থাপিকা, ভয়েস আটির্স,অফিস সহকারী পুরুষ – মহিলা এসএসসি,এইচএসসি,স্নাতক,ছবি সহ আবেদন করতে হবে এই মেইলে hr@ndtvbd.com * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * নাগরিক সাংবাদিকতার পথে ,আপনি হতে পারেন নাগরিক সাংবাদিক, দেরি না করে এখনি পাঠিয়ে দিন আপনার ছবি সহ বায়োডাটা এই মেইলে hr@ndtvbd.com, আপনারা যদি কোন সংবাদ বা নিউজ ক্লিপ পাঠাতে চান তাহলে এই মেইলে পাঠাতে পারেন news@ndtvbd.com– Head Of News–* পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার

সাত খুনের ১৪ বছর পর জাপানে হত্যাকারীর ফাঁসি

akihaba samakal

9 / 100

৩৯ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির নাম তোমোহিরো কাতো। ২০০৮ সালে আকিহাবারা শপিং জেলায় ভিড়ের মধ্যে পথচারীদেরকে একের পর এক ছুরিকাঘাত করেন তিনি। সে সময় তার বয়স ছিল ২৫ বছর। প্রকাশ্য রাস্তায় ছুরিকাঘাতে সাত খুন মামলার এক আসামির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে জাপান। হত্যাকাণ্ডের ১৪ বছর পর টোকিওতে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। খবর বিবিসির। জাপানে স্মরণকালের মর্মান্তিক ওই ঘটনায় তার ছুরিকাঘাতে অন্তত ৮ জনকে আহত করার পর ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছিল। পরে তিনি দায় স্বীকার করে জানিয়েছিলেন, অনলাইনে হেনস্থার শিকার হয়ে তার ভেতরে ক্ষোভ সৃষ্টি হলে তিনি এ ঘটনা ঘটান।

akihaba samakal

এ ঘটনা সে সময় জাপানে অনলাইনের প্রভাব ও তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে তুমুল বিতর্কের জন্ম দেয়। তখন দেশটিতে ছুরির মালিকানার আইনও কঠোর করা হয়েছিল।

প্রসিকিউটরদের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানিয়েছে, তোমোহিরো কাতো তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে হতাশায় ভুগছিলেন। তিনি ছিলেন একজন ব্যাংকারের ছেলে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়ে তিনি গাড়ির মেকানিক হিসেবে প্রশিক্ষণ নেন।

ঘটনার আগে তিনি এক নারীর সাথে অনলাইনে চ্যাট করতেন। তাকে নিজের একটি ছবিও পাঠান। এরপর হঠাৎ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলে কাতোর আত্মবিশ্বাস আরও কমে যায়। সে সময় তিনি ভাবতেন সবাই তাদের জীবন উপভোগ করছে। তাদের স্বপ্ন, উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ, পরিবার ও প্রেমিকা নিয়ে সুখে আছে। এতে তার হতাশা ও ক্ষোভ চরমে পৌঁছায়।

বিচারের অপেক্ষায় থাকাকালীন, কাতোর ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছিলেন এমন একজন ট্যাক্সি চালককে চিঠি লিখে অনুশোচনা প্রকাশ করেছিলেন।

২০১১ সালে টোকিও জেলা আদালত তার মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন। এরপর ২০১৫ সালে তার আপিল নাকচ করা হয়।

জাপানে এ বছর এটিই প্রথম মৃত্যদণ্ড কার্যকরের ঘটনা। এর আগে গত ডিসেম্বরে তিনজনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছিল। এছাড়া বর্তমানে শতাধিক কারাবন্দি মৃত্যুদণ্ডের পথে রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের বিধান রাখা কয়েকটি উন্নত দেশের মধ্যে জাপান একটি। আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় মানবাধিকার সংস্থার ব্যাপক সমালোচনার পরও দেশটিতে এ বিধান কার্যকর রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুকে আমরা