মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:০৯ অপরাহ্ন
নিউজ বোর্ড :
শেয়ারট্রিপ পেল স্টার্টআপ থেকে ৫ কোটি ডলার বিনিয়োগ নারীদের বঙ্গমাতার জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী তেলের মূল্য বিশ্ব বাজারে কমলে দেশেও সমন্বয় করা হবে : তথ্যমন্ত্রী বাড়ানো হতে পারে ট্রেনের ভাড়াও : রেলমন্ত্রী ১ অক্টোবর থেকে,পণ্য বিক্রি বন্ধ হচ্ছে ডিজিটাল প্লাটফর্ম ফেইসবুক লাইভে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে লঞ্চ মালিকদের সাথে বৈঠক,লঞ্চের ভাড়া বাড়ানোর আবেদন ঢাকার দুই মেয়র মন্ত্রী পদমর্যাদা পাচ্ছেন ‘আপডেট অফ ভাসকুলার সার্জারি’বিএসএমএমইউয়ে বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত ৫ নারী পেলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পদক তরুণ প্রজন্মের প্রতি,বঙ্গমাতার আদর্শ ধারণের আহ্বান রাষ্ট্রপতির দৃঢ়চেতা-বলিষ্ঠ চরিত্রের অধিকারী ছিলেন,ফজিলাতুন নেছা মুজিব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি কর্মসূচি জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বিএনপি নতুন ,রাজপথের পুরাতন খেলোয়াড় আমরা-ওবায়দুল কাদের সরকার দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র বানিয়েছে : মির্জা ফখরুল শ্রীলঙ্কায় ডিজেল-গ্যাসের পর নিত্যপণ্যের দাম কমালো ‘চীনের স্বপ্ন’ ছিল পেলোসি : ট্রাম্প জগদীপ ধনকড় ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি হলেন ৩টি টি-টোয়েন্টির ২টি জিতেছে জিম্বাবুয়ে, ১টি বাংলাদেশ। শতকোটি টাকার ‘‌দিন দ্য ডে’ কথা নাকি নির্মাণ নাকি অনন্ত-বর্ষা নিয়ে চলমান তান্ডব !
নোটিশ বোর্ড :
জরুরি ঘোষণাঃ আমাদের আই টি বিভাগের কারিগরি উন্নয়ন এর কাজ চলছে! এতে প্রচারে বিঘ্ন ঘটতে পারে সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখিত। #Ndtvbdnewsroom “জরুরী আবশ্যক”বেসরকারী অনলাইন টেলিভিশন চ্যানেল ” নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন ” এনডিটিভি তে এ উপস্থাপক উপস্থাপিকা, ভয়েস আটির্স,অফিস সহকারী পুরুষ – মহিলা এসএসসি,এইচএসসি,স্নাতক,ছবি সহ আবেদন করতে হবে এই মেইলে hr@ndtvbd.com * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * নাগরিক সাংবাদিকতার পথে ,আপনি হতে পারেন নাগরিক সাংবাদিক, দেরি না করে এখনি পাঠিয়ে দিন আপনার ছবি সহ বায়োডাটা এই মেইলে hr@ndtvbd.com, আপনারা যদি কোন সংবাদ বা নিউজ ক্লিপ পাঠাতে চান তাহলে এই মেইলে পাঠাতে পারেন news@ndtvbd.com– Head Of News–* পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার * পরিক্ষামুলক সস্প্রচার

কমলাপুর স্টেশনে ঘরমুখো যাত্রীদের ছিল উপচেপড়া ভিড়

IMG20220 1

5 / 100

শনিবার সকালে ধূমকেতু এক্সপ্রেস ৪০ মিনিট এবং নীলসাগর এক্সপ্রেস ৪৫ মিনিট দেরিতে ছেড়ে যায়। ঈদযাত্রার চতুর্থ দিনেও রাজধানী ছাড়ছে নগরবাসী। শনিবার (৩০ এপ্রিল) কমলাপুর স্টেশনে ঘরমুখো যাত্রীদের ছিল উপচেপড়া ভিড়।

ধূমকেতু সকাল ৬টায় ছেড়ে যাবার কথা থাকলেও সেটি স্টেশন ছাড়ে ৬টা ৪০ মিনিটে। আর ৬টা ৪০ মিনিটে নীলসাগর স্টেশন ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি স্টেশন ছেড়েছে ৭টা ২৫ মিনিটে। তবে বাকি ট্রেনগুলো কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে সঠিক সময়েই ছেড়েছে।

নির্দিষ্ট সময়ের আগেই হাজারো ঘরমুখো মানুষের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে পুরো স্টেশন। ভোগান্তি এড়াতে যাত্রীরা ট্রেন ছাড়ার এক থেকে দুই ঘণ্টা আগেই স্টেশনে পৌঁছান।

ভোরের ট্রেন ধরতে অনেকেই আবার সেহরির পরপরই স্টেশনে আসেন। কমলাপুর স্টেশনে বিনা টিকিটে কেউ প্রবেশ করতে পারছেন না, মেইন গেটে টিকিট প্রদর্শন করেই প্রবেশের অনুমিত মিলছে। যারা টিকিট পাননি, তারাও নিতে পারছেন স্ট্যান্ডিং টিকিট।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা যায়, এদিন ভোর থেকেই সবগুলো প্ল্যাটফর্মে যাত্রীদের ভিড় ছিল। একে তো গরম, এরপর আবার বেশি লোকসমাগমের কারণে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে প্ল্যাটফর্মে অপেক্ষারত যাত্রীদের। গরমে শিশুদের কিছুটা প্রশান্তি দিতে অনেক অভিভাবককে হাত পাখা দিয়ে তার সন্তানদের বাতাস করতে দেখা যায়।

ঈদযাত্রার প্রথম দুইদিন বুধ ও বৃহস্পতিবার স্বাভাবিক ভিড় থাকলেও শুক্রবার সকাল থেকেই বেড়েছে যাত্রীর চাপ। কমলাপুর স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে তিল ধারনের জায়গা ছিল না শুক্রবার, আজও একই অবস্থা।

ঘরমুখো যাত্রীরা বলছেন, গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা করা মানে অনেক আনন্দের। করোনার কারণে গত দুই বছর বাড়ি গিয়ে পরিবারের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে না পারায় এবার বাড়ি যাচ্ছেন তারা।

কথা হয় রাজশাহী অভিমুখী ধূমকেতু এক্সপ্রেসের যাত্রী তাসনিন তাবাচ্ছুমের সঙ্গে। একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা তাসনিন বলেন, ঈদযাত্রা মানে ছেলেবেলাকে মনে পড়ে। ছাত্রাবস্থায় যেভাবে বাড়ি ফিরেছি এখনও ট্রেনযোগে সেভাবেই বাড়ি ফিরি। ঘরের এ আনন্দ অন্যরকম। যদিও ৪০ মিনিট দেরিতে ট্রেন ছাড়লো তবুও আনন্দ লাগছে বহুদিন পর বাড়ি যাবো এটা ভেবে।

এগারো সিন্দুর প্রভাতীর যাত্রী নূর ওয়াহেদ বলেন, আমাদের রেল ব্যবস্থাপনা ভালো হলে ঈদের আনন্দ আরও বেড়ে যেতো। হাজার হাজার মানুষের টিকিট পেতে ২৪ ঘণ্টার অপেক্ষা দেখেছি, যা কাম্য না। বিশ্বের অন্য কোনো দেশে এমনটা নেই। আমাদের সেবাকে আরও আধুনিক করার দরকার। তবে এতো কষ্টের মধ্যেও বাড়ি ফিরছি এটাই বড় আনন্দ। পরিবারের সঙ্গে ঈদ করবো এটাই আনন্দের।

গত বুধবার (২৭ এপ্রিল) থেকে এবারের ঈদযাত্রা শুরু করে রেলওয়ে। তবে প্রথম দুইদিন (বুধ ও বৃহস্পতিবার) যাত্রীর চাপ তেমনটা না থাকলেও শুক্রবার থেকে তা বেড়েছে।

ঈদযাত্রা শেষে ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১ মে থেকে। এবারের ঈদযাত্রার সুবিধার্থে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

ঈদ উপলক্ষে গত শনিবার (২৩ এপ্রিল) থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুকে আমরা