" /> ৬ মাস পর ফাইজারের টিকার কার্যকারিতা কমে যায়: গবেষণা – নাগরিক দৃষ্টি টেলিভিশন
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:৫৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
খালেদা, তারেককে নিয়ে সময় টিভির প্রতিবেদন সম্পর্কে যা বললেন ফখরুল বিদ্যুতের দাম প্রতি মাসেই সমন্বয় করা হবে : প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী উচ্চশিক্ষার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন : নাছিম বিআইডব্লিউটিএ’র অনুমোদন ছাড়া কোনো সেতু নয় : নৌ প্রতিমন্ত্রী সিলেটে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস- ২০২৩ উদযাপন সাংবাদিক আফতাব হত্যা : ৯ বছর ছদ্মবেশে ফাঁসির আসামি, অবশেষে গ্রেপ্তার বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা সাংবাদিক আফতাব হত্যা : ৯ বছর ছদ্মবেশে ফাঁসির আসামি, অবশেষে গ্রেপ্তার বার বার আদালতে আনা নেয়ায় অসুস্থ হয়েছেন রিজভী : ইউট্যাব ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার মূল হাতিয়ার হবে ডিজিটাল সংযোগ : প্রধানমন্ত্রী

৬ মাস পর ফাইজারের টিকার কার্যকারিতা কমে যায়: গবেষণা

pfizer 1615272592252 1622130519220

ফাইজার বায়োএনটেক টিকার দুই ডোজ নেওয়ার ৬ মাস পর এর কার্যকারিতা ৪৭ শতাংশ থেকে ৮৮ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়। গতকাল সোমবার প্রকাশিত  নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন চিত্র উঠে এসেছে। খবর রয়টার্সের।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য সংস্থা ফাইজারের বুস্টার ডোজ প্রয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণের মধ্যে এ তথ্য উঠে আসলো। ল্যানসেট মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত এই তথ্য গত আগস্টে পিয়ার রিভিউ’র আগে প্রকাশিত হয়েছিল। তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, অন্তত ছয় মাস এই টিকা করোনা আক্রান্তকে হাসপাতালে নেওয়া ও মৃত্যু ঠেকাতে ৯০ শতাংশ কার্যকর। এমনকি অতি সংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টেও এই কার্যকারিতা থাকে।

বিশ্লেষণে বলা হয়, দুই ডোজ দেওয়ার পর প্রথম মাস ফাইজারের এই টিকা ৮৮ শতাংশ কার্যকর থাকে, কিন্তু ছয় মাস পর এই কার্যকারিতা ৪৭ শতাংশ কমে যায়। এই টিকা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে খুবই কার্যকর এবং প্রথম মাসে এটি ৯০ শতাংশ কার্যকর। তবে চতুর্থ মাসে এর কার্যকারিতা ৫৩ শতাংশ কমে যায়।

এ গবেষণায় ফাইজার এবং কায়সার পারমানেন্টি গবেষকরা ৩০ লাখ ৪০ হাজার মানুষের ই নথি বিশ্লেষণ করেন। নথি বিশ্লেষণে টিকার প্রয়োগের আগে এবং টিকা প্রয়োগের পরের চিত্র তুলে ধরা হয়। অর্থাৎ ২০২০ এবং ২০২১ সালের তথ্যের মধ্যে তুলনামূলক বিশ্লেষণ করা হয়েছে। ndtvbd/news desk


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা