নির্বাচন কমিশন কি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু- জানতে চাইলে মির্জা আব্বাস বলেন, নির্বাচন কমিশন কোনো ইস্যু না। ইস্যু হলো-এই সরকারের অধীনে কথা খুব পরিস্কার- নির্বাচন হতে পারে না। যে সরকার নির্বাচনের রাতে বাক্স ভর্তি করে ফেলে, সেই সরকারের অধীনে কিভাবে নির্বাচন চাই।

জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা জানানোর আগে চন্দ্রিমা উদ্যানে ওলামা দলের এক কর্মীকে আটক করার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আলেম-ওলামাদের গ্রেপ্তার করে সরকার কাকে খুশি করতে চাচ্ছে? আমি বুঝি না! গত ৬ মাসে কত আলেমদের হঠাৎ করে গায়েব করে দেওয়া হলো, কী কারণে?

নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচন হতে দেবেন না, এই দাবি বিএনপি কিভাবে আদায় করবে- প্রশ্নের জবাবে আব্বাস বলেন, বিএনপি ইতোপূর্বে বহু দাবি আদায় করেছে। এবারও করবে। এটা সময়ের ব্যাপার।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নেতা কে হবেন- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এই বক্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মির্জা আব্বাস বলেন, বিএনপিকে নিয়ে আওয়ামী লীগের না ভাবলেই চলবে। তাদের নিজের চরকায় তেল দিতে বলেন যে। কারণ দেশের মানুষের মুখে মুখে কথা উঠেছে, আওয়ামী লীগ নেই- বিএনপি আছে।

এসময় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালামসহ ওলামা দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন

ndtvbd/news desk